ব্রেকিং:
বাংলাদেশে পৌঁছেছে ভারতের উপহারের ২০ লাখ ডোজ করোনা টিকা ‘কোভিশিল্ড’। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার কিছু আগে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে এয়ার ইন্ডিয়ার বিশেষ ফ্লাইটটি। অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার এ টিকা বাংলাদেশকে উপহার হিসেবে দিলো ভারত সরকার।
  • বৃহস্পতিবার   ২১ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ৮ ১৪২৭

  • || ০৭ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সর্বশেষ:
দেশে করোনার টিকাদান শুরু হবে ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী মুজিববর্ষ উপলক্ষে ৯ লাখ পরিবারকে বাড়ি দিচ্ছে সরকার ঠাকুরগাঁওয়ে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে পলিথিনে ঢাকা বীজতলা ৪’শ কোটি টাকায় প্রতিবন্ধীদের জন্য ক্রীড়া কমপ্লেক্স করবে সরকার বিনাশুল্কে বাংলাদেশি ৮২৫৬ পণ্য যাচ্ছে চীনের বাজারে

গাইবান্ধা জেলার বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে       

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৪ জুলাই ২০২০  

গত ২৪ ঘণ্টায় ব্রহ্মপুত্র নদের পানি ৩৬ সেন্টিমিটার বেড়ে বিপৎসীমার ১০৩ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ফলে গাইবান্ধা জেলার আরও নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে।

জানা গেছে, উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে ওইসব নদ-নদীর পানি হু হু করে বৃদ্ধি পাচ্ছে। এর ফলে জেলার সদর, সুন্দরগঞ্জ, সাঘাটা ও ফুলছড়ি উপজেলার নিম্নাঞ্চলের প্রায় দুই লাখ মানুষ পানিবন্দী রয়েছে। এতে করে জেলার ২৮ ইউনিয়নের প্রায় দুই লাখ মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। পানির তীব্র স্রোতের কারণে ভাঙছে বসতভিটা, আবাদি জমি।

এমন পরিস্থিতিতে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষগুলো আত্মীয়-স্বজনের বাড়িসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও উঁচু বাঁধে আশ্রয় নিয়েছে।

মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) বিকেল ৩টায় গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের কন্ট্রোল রুম থেকে জানানো হয়, ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বিপৎসীমার ১০৩ সেন্টিমিটার ও ঘাঘট নদীর পানি ৭৭ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এছাড়া করতোয়া নদীর পানি ৩৮ এবং তিস্তা নদীর পানি ২০ সেন্টিমিটার বিপৎসীমার নিচে রয়েছে। যা গতকাল সোমবার বিকেল ৩টায় ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বিপৎসীমার ৬৭ সেন্টিমিটার, ঘাঘট নদীর পানি ৪৩ সেন্টিমিটার উপরে ছিল।

গাইবান্ধা জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা একেএম ইদ্রিস আলী জানান, বন্যার্ত মানুষদের জন্য এ পর্যন্ত ৩২০ মেট্রিক টন চাল ও নগদ ১৫ লাখ টাকা, ২ লাখ টাকার গোখাদ্য, ৪ লাখ টাকার শিশুদের খাবার বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে তা বিতরণ করা হচ্ছে।

গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক মো. আবদুল মতিন জানান, বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় কন্ট্রোলরুম খোলা হয়েছে। সেই সঙ্গে বন্যার্ত মানুষদের ত্রাণ সামগ্রী দেয়াসহ তাদের নানাভাবে সহায়তা করা হচ্ছে।

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –