ব্রেকিং:
হাটবাজার, দোকানপাট ও শপিংমল খোলা রাখার সময় বাড়ানো হয়েছে। সময় এক ঘণ্টা বাড়িয়ে রাত আটটা পর্যন্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। যা এতদিন সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত ছিল। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও সব ধরনের কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশ করোনার উপসর্গ নিয়ে কুড়িগ্রামে পুলিশ সদস্যের মৃত্যু পানিবন্দি ৩০ লাখ মানুষকে খাদ্য সহায়তা অব্যাহত:ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ৪৮ ঘণ্টা আগেই রংপুর সিটিতে পশুর বর্জ্য অপসারণ গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আরো ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজার ৩৫৬ জন।
  • মঙ্গলবার   ০৪ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ১৯ ১৪২৭

  • || ১৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

সর্বশেষ:
বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর জনগণ সব সম্ভাবনা হারিয়ে ফেলে- প্রধানমন্ত্রী ঠাকুরগাঁওয়ে রত্নাই সীমান্তের নাগর নদীতে বাংলাদেশির লাশ ভিয়েনায় `বঙ্গবন্ধু স্মৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট` উদ্বোধন দেশবাসী নিরাপদে ঈদ উদযাপন করেছে- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশে ধর্ম যার যার উৎসব কিন্তু সবার- তথ্যমন্ত্রী
৪৪

বাইপাস সড়ক ভেঙ্গে যাওয়ায় পীরগঞ্জ-রাণীশংকৈল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন     

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৭ জুন ২০২০  

কয়েক দিনের টানা বর্ষনে ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। পীরগঞ্জ-রাণীশংকৈল পাঁকা সড়কের গণিরহাট এলাকায় নির্মাণাধীন ব্রীজের বাইপাস সড়ক পানিতে তলিয়ে ভেঙ্গে যাওয়ায় ঐ দুই উপজেলার মধ্যে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

এতে ভোগান্তিতে পড়েছে হাজার হাজার মানুষ। সড়ক ও জনপথ বিভাগের অধীনে পীরগঞ্জ-রাণীশংকৈল পাঁকা সড়ক প্রশস্থকরণ কাজ চলছে। এরই অংশ হিসেবে ঐ সড়কের গণিরহাট এলাকায় অন্তার ব্রীজ ভেঙ্গে পুনরায় নির্মাণ করছে গোপালগঞ্জের একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। যোগাযোগ সচল রাখতে ঐ ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান নির্মাণাধীন ব্রীজের পার্শ্বে দায়সাড়া ভাবে একটি বাইপাস সড়ক নির্মাণ করেন যা কয়েকদিনের বর্ষনে পানিতে তলিয়ে যায়। পানির প্রবাহ বেশি থাকায় এরই মধ্যে পাইপাস সড়কের কিছু অংশ ভেঙ্গেও যায়। এতে বৃহস্পতিবার রাত থেকেই পীরগঞ্জ ও রাণীশংকৈল উপজেলার মধ্যে সরাসরি সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

জেলা সদর থেকে পীরগঞ্জ হয়ে রাণীশংকৈল ও হরিপুর উপজেলায় চলাচলকারী সকল প্রকার যানবাহন সরাসরি চলাচল করতে পারছে না। যানবাহন গুলি পীরগঞ্জ হয়ে ওই ব্রীজের পূর্ব পাশ্ব পর্যন্ত চলাচল করছে। অপর দিকে হরিপুর ও রাণীশংকৈল থেকে পীরগঞ্জ অথবা জেলা সদরের উদ্দেশ্যে আসা যানবাহন সমূহ পীরগঞ্জ বা জেলা সদরে যেতে পারছে না। সেগুলি ওই ব্রীজের পশ্চিম পাশ্ব পর্যন্ত চলাচল করছে। সাধারণ মানুষকে যানবাহন থেকে নেমে ভেঙ্গে যাওয়া ওই বাইপাস সড়কের পানি মাড়িয়ে অপর প্রান্তে গিয়ে আবারো অন্য যানবাহনে উঠে গন্তব্যে যেতে হচ্ছে। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়ছেন যাত্রীসহ পথচারীরা।


পীরগঞ্জ থেকে মোটরসাইকেল নিয়ে রাণীশংকৈলের উদ্দেশ্যে যাওয়া আব্দুর রহিম কিরণ নামে এক পথচারী জানান, অন্তার ব্রীজ এলাকার বাইপাস ভেঙ্গে যাওয়ায় যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এ কারণে যেতে পারলাম না। ফিরে আসতে হলো।


জনদুর্ভোগের চিত্র দেখতে শুক্রবার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন উপজেলা চেয়ারম্যান আখতারুল ইসলাম ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার রেজাউল করিম। তারা বিষয়টি সড়ক ও জনপথ বিভাগের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের জানান এবং ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে বাইপাস সড়ক মেরামত করার কথা বলেন।


উপজেলা চেয়ারম্যান আখতারুল ইসলাম জানান, সড়ক জনপথ বিভাগের ঠাকুরগাঁওয়ের নির্বাহী প্রকৌশলীকে বিষয়টি জানানো হলে, তিনি সেখানে অস্থায়ী ভাবে বেইলি ব্রীজ নির্মাণ করার জন্য ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে বলেছেন। আশা করছি আজকালের মধ্যেই সেখানে বেইলি ব্রীজ নির্মাণ করা হবে। এতে জনগণের দুর্ভোগ লাঘব হবে।


এদিকে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা তারিফুল ইসলাম জানান, কয়েকদিনের টানা বর্ষণে উপজেলার নিয়ামতপুর, মছলন্দপুর ও লাছি নদীর ধারস্থ মিত্রবাটী এলাকার কিছু বাড়িতে পানি উঠেছে। এরই মধ্যে নিয়ামতপুর ও মালঞ্চা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, নতুনকুঁড়ি কেজি স্কুল এবং মছলন্দপুর হরিবাসরে আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে। সেখানে প্রায় অর্ধশত পরিবার আশ্রয় নিয়েছেন। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদের সকল প্রকার সহযোগীতা করা হচ্ছে।

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –
ঠাকুরগাঁও বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর