ব্রেকিং:
চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে আল্লামা শাহ আহমদ শফীর জানাজার নামাজ সম্পন্ন।
  • শনিবার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ৪ ১৪২৭

  • || ০১ সফর ১৪৪২

সর্বশেষ:
আল্লামা শফীর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক সরকারের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বদলে যাচ্ছে উত্তর দিগন্ত কেন্দ্রীয় কারাগারে নিরাপত্তা বাড়াতে স্ট্রাইকিং ফোর্স গঠন হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ১৫০ ট্রাক পেঁয়াজ আসছে আজ নেতৃত্ব নিয়ে এখন টালমাটাল অবস্থায় বিএনপি
৫৫

১০ টাকা দিয়ে বাঁশের সেতু পার হয় রাণীশংকৈলবাসী 

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৩ সেপ্টেম্বর ২০২০  

ঠাকুরগাঁও রাণীশংকৈল উপজেলার রাউতনগর কুলিক ব্রিজ গুনছে অপেক্ষার প্রহর। নির্মাণের বছরই ভেঙে যায় ব্রিজটি। গত দুই যুগেও সংস্কার করা হয়নি। এরপর নির্মাণ করা হয় বাঁশ ও কাঠের সেতু। সেখান থেকে পার হতে জন প্রতি টোল দিতে হয় ১০ টাকা। আর এভাবেই বাঁশের সেতুতে টাকা দিয়ে ২৩ বছর ধরে পারাপার হচ্ছে রাউতনগর ও লেহেম্বা (বিরাশী) এলাকাবাসী।

জানা যায়, এ জনবহুল এলাকার মানুষের জন্য ১৯৮৬-৮৭ সালের দিকে একটি ১৫০ মিটারের ব্রিজ নির্মাণ হয়। ওই বছরেই বন্যায় ওই ব্রিজটি দুমড়ে-মুচড়ে ভেঙে যায়। আর এরপর মেরামত কিংবা নতুন ব্রিজ নির্মাণের কোনো উদ্যোগ নেয়নি কতৃপক্ষ।

রাউতনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি গোলাম রাব্বানী বলেন, সংশ্লিষ্ট দপ্তর এ বিষয়ে নজর দিলেই ব্রিজটি নির্মাণ হবে।

রাউতনগর কুলিক নদীতে দেখা যায়, ভাঙা ব্রিজের দক্ষিণ পাশেই নিজ উদ্যোগে একটি বাঁশ ও কাঠের অস্থায়ী সেতু নির্মাণ করা হয়েছে। এতে নদী পার হতে জন প্রতি নেওয়া হয় ১০ টাকা হারে। এখানকার মানুষের এভাবেই কেটে যাচ্ছে প্রায় দুইযুগ। বর্তমানে এ সেতুই দুই ইউনিয়নের মানুষের মিলিত হওয়ার একমাত্র মাধ্যম। সেতুর পূর্ব পাশে বিরাশী বাজারসহ একটি
মাদরাসা, চারটি বিদ্যালয় এবং পশ্চিম পাশে রাউতনগর বাজারসহ একটি কলেজ, দুইটি মাদরাসা ও তিনটি বিদ্যালয় রয়েছে।

এলাকার মানুষের অভিযোগ, ব্রিজের দুইপাশে দুটি বড় বাজার এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থাকার ফলে এ এলাকার মানুষকে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে। প্রতিদিন এ অস্থায়ী ব্রিজে চলাচল করে প্রায় ৪ হাজারেরও অধিক মানুষ।

সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাহবুব আলম জানান, এ ব্রিজটি নিয়ে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে যোগাযোগ করছি। আশা করি হয়ে যাবে।

রাণীশংকৈর উপজেলা প্রকৌশলী তারেক বিন ইসলাম বলেন, এ ব্রিজটির বিষয়ে বিভাগীয় উন্নয়ন প্রকল্পে ধরে দেওয়া আছে। যেহেতু ১০০ মিটারেরও অধিক বড় কাজ টিম এসে মাপযোক করে নিয়ে গেছে। তবে কখন হবে আমি তা বলতে পারবো না।

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –
ঠাকুরগাঁও বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর