• মঙ্গলবার   ৩১ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৮ ১৪২৯

  • || ০৮ রজব ১৪৪৪

চিলমারীতে জেলের জালে ৪৫ কেজির বাঘাইড়, ৫৮ হাজারে বিক্রি

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৫ ডিসেম্বর ২০২২  

চিলমারীতে জেলের জালে ৪৫ কেজির বাঘাইড়, ৫৮ হাজারে বিক্রি                  
ব্রহ্মপুত্র নদে ৪৫ কেজি ওজনের একটি বাঘাইড় মাছ ধরা পড়েছে কুড়িগ্রামের চিলমারীর রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের কাচকোল এলাকার জেলে আকালুর (৫৫) জালে।

এরপর মাছটি উপজেলার পাম্পমোড় এলাকায় নিয়ে আসে মাছ ব্যবসায়ী সাজু মিয়া। এত বড় বাঘাইড় মাছ দেখতে পথচারীসহ উৎসুক জনতা ভিড় জমায়। পরে মাছটি কেটে ৫৮ হাজার ৫০০ টাকায় বিক্রি করা হয়।

স্থানীয়রা জানান, রোববার সকালে উপজেলার কাচকোল ঘাট এলাকার জেলে আকালু ব্রহ্মপুত্র নদে জাল ফেলেন। তার জালে ৪৫ কেজি ওজনের একটি বাঘাইড় মাছ ধরা পড়ে। সেখানে উন্মুক্ত ডাকে ১ হাজার ২০০ টাকা কেজি দরে মোট ৫৪ হাজার টাকায় মাছটি কিনে নেন থানাহাট বাজারের মাছ ব্যবসায়ী সাজু মিয়া। এ সময় ওই ঘাটে মাছটি দেখতে উৎসুক জনতা ভিড় জমান। 

পরে দুপুরে উপজেলার পাম্পমোড় এলাকায় মাছ ব্যবসায়ী সাজু মিয়া ৪৫ কেজি ওজনের মাছটি কেটে ১ হাজার ৩০০ টাকা কেজি দরে মোট ৫৮ হাজার ৫০০ টাকায় খুচরা বিক্রি করেন।

মাছ ব্যবসায়ী সাজু মিয়া জানান, বর্তমানে ব্রহ্মপুত্র নদে জেলেদের জালে প্রায়ই বিভিন্ন ওজনের বাঘাইড় মাছ ধরা পড়ছে। বাজারে এ মাছের চাহিদাও রয়েছে। বিভিন্ন ঘাট থেকে মাছ কিনে কেটে খুচরা বিক্রির কথা জানান তিনি। এছাড়াও চাকরিজীবি, ব্যবসায়ী ও  রাজনীতিবিদরা তার কাছ থেকে এসব মাছ কিনে নেয় বলে জানা গেছে। ব্রহ্মপুত্র নদের বিভিন্ন প্রজাতির এবং বিভিন্ন ওজনের মাছ কেউ চাইলে তাকে পৌঁছে দেওয়ার কথাও বলেন সাজু।

উপজেলার মৎস্য কর্মকর্তা মো. নুরুজ্জামান খান জানান, এ সময়ে ব্রহ্মপুত্র নদের বিভিন্ন এলাকায় বড় বড় মাছ ধরা পড়ছে। এরকম মাছ ধরা পড়লে জেলে ও ব্যবসায়ী উভয়ই খুশি হয়। মৎস্য বিভাগের পক্ষ থেকে এই এলাকায় এ ধরনের মাছের জন্য অভয়াশ্রম গড়ে তুলে ও তাদের রক্ষা করতে চেষ্টা করা হচ্ছে। যেন তারা নদীতে বংশ বিস্তার করতে পারে।

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –