• রোববার   ২৬ জুন ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১২ ১৪২৯

  • || ২৫ জ্বিলকদ ১৪৪৩

সর্বশেষ:
যান চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হলো পদ্মা সেতুর প্রবেশদ্বার বাংলাদেশ গুরুত্বপূর্ণ দেশ: জো বাইডেন বন্যার্তদের সাহায্যের কথা বলে ফান্ড ভারি করছে বিএনপি পদ্মা সেতু উদ্বোধনের সঙ্গে সঙ্গে খুলে গেল আয়ের খাতা পদ্মা সেতু নিয়ে ষড়যন্ত্র : জড়িতদের খুঁজতে রুল শুনবেন হাইকোর্ট

জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র থেকে সজাগ থাকার পরামর্শ

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২ জুন ২০২২  

আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে তৃণমূল পর্যায় থেকে দলকে শক্তিশালী করার পরামর্শ দেয়ার পাশাপাশি আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক নানা ষড়যন্ত্র সম্পর্কে সবাইকে সর্র্র্র্বদা সজাগ ও সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন আওয়ামী লীগের থিঙ্ক ট্যাঙ্ক উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যরা।

এমন পরামর্শের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাত্রলীগসহ সবাইকে মানববন্ধনের মতো শান্তিপূর্ণ কর্মসূচী পালনের নির্দেশ দিয়ে বলেছেন, অনেকে রাজনীতির মাঠে এখন লাশ চায়। তাদের সেই স্বার্থ যেন হাসিল না হয়। কেউ আন্দোলনের নামে সহিংসতা করলে সে অবস্থায় গঠনমূলকভাবে প্রতিহত করতে হবে। রাজনীতিকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবেলা করতে হবে। কেউ সহিংসতা করলে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে প্রশাসনসহ আইন প্রয়োগকারী সংস্থাই ব্যবস্থা নেবে। তবে দলগতভাবে যেকোন পরিস্থিতি মোকাবেলায় সতর্ক থাকতে হবে।

বুধবার তাঁর সরকারী বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী এমন নির্দেশ দেন বলে জানা গেছে। সূত্র জানায়, বৈঠকে উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যরা আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলেই দেশ এগিয়ে যায়। দেশের কিছু রাজনৈতিক দল তা চায় না। তারা ভিন দেশীদের স্বার্থসিদ্ধির জন্য উঠে পড়ে লেগেছে। তাই দেশী ও ভিন দেশীদের ষড়যন্ত্র থেকে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।

সভা সূত্র জানায়, দেশবিরোধী সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় শুধু দলগতভাবে নয়, দেশের মানুষকেও সঠিক বার্তা দিয়ে সচেতন করে তুলতে হবে। সভায় অনেক বাধা, ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে নিজেদের অর্থে পদ্মা সেতু নির্মাণে সাহসী ও বিশ্বের নজির সৃষ্টিকারী পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যরা।

বৈশ্বিক মহামারী করোনার কারণে প্রায় আড়াই বছর পর অনুষ্ঠিত উপদেষ্টা পরিষদের এই বৈঠকে দেশ ও বিশে^র আর্থ-সামাজিক ও রাজনৈতিক বিষয়, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাবে বৈশ্বিক সঙ্কট, আগামী জাতীয় নির্বাচন এবং নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণসহ দলের সাংগঠনিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। বিকেল ৪টা থেকে দীর্ঘ পাঁচ ঘণ্টার এই বৈঠকে দলের ‘থিঙ্ক ট্যাঙ্ক’ হিসেবে পরিচিত উপদেষ্টা পরিষদ সদস্যরা নানা বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছেন। আওয়ামী লীগ প্রধান শেখ হাসিনা দেশী-বিদেশী বিভিন্ন সঙ্কট মোকাবেলায় সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

বৈঠক শেষে গণভবনের গেটে দলের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য প্রবীণ নেতা তোফায়েল আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, আওয়ামী লীগ একটি শক্তিশালী রাজনৈতিক দল। এই দলের বিরুদ্ধে অনেক ষড়যন্ত্র হবে। সেইসব ষড়যন্ত্র গঠনমূললকভাবে মোকাবেলার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, অনেকে রাজনীতির মাঠে এখন লাশ চায়। একটা লাশ পড়ুক ইত্যাদি। তাদের সেই স্বার্থ যেন হাসিল না হয়।

তিনি বলেন, উপদেষ্টা পরিষদ সদস্যদের পক্ষ থেকেও বৈঠকে উদ্ভূত পরিস্থিতি মোকাবেলায় ছাত্রলীগসহ দলের সকল সংগঠনকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। যেমন বিশ^বিদ্যালয়ে ছাত্রদল-ছাত্রলীগের মধ্যে যে একটা ভুল বোঝাবুঝি, সেখানেও ছাত্রলীগকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে তারা যেন সতর্কতার সঙ্গে চলেন। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে, তারা যেন সতর্কতার সঙ্গে গঠনমূলকভাবে সেসব কাজের মোকাবেলা করতে পারেন। বৈঠকে অত্যন্ত সুন্দর, গঠনমূলক ও ভাল আলোচনা হয়েছে বলেও জানান তোফায়েল আহমেদ।

দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জানান, বৈঠকে আগামী জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে তৃণমূল পর্যায় থেকে দলকে শক্তিশালী করার পরামর্শ দিয়েছেন উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যরা। দেশ-বিদেশের ষড়যন্ত্র বিষয়ে দলকে সতর্ক থাকার পরামর্শও দিয়েছেন তারা।

তিনি বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পরিস্থিতিতে ছাত্রলীগকে মানববন্ধনের মতো শান্তিপূর্ণ কর্মসূচী পালন করার পরামর্শ দিয়েছেন উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যরা। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে দেশী-বিদেশী বিভিন্ন সঙ্কট মোকাবেলার বিষয়ে নেতাদের সতর্ক থাকার কথাও বলেছেন তারা।

বৈঠক সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদ্মা সেতু নির্মাণের ক্ষেত্রে বিভিন্ন মহলের নানা প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির বিষয়টি তুলে ধরে বলেন, সব প্রতিকূলতা মোকাবেলা করেই নিজস্ব অর্থে এই সেতুর নির্মাণ শেষ করা হয়েছে। আগামী ২৫ জুন এই সেতুর উদ্বোধন করা হবে। উদ্বোধন উপলক্ষে দেশজুড়ে উৎসবমুখর আয়োজনে সরকার ও আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পরিকল্পনার কথাও তুলে ধরেন তিনি।

বৈঠকে উপদেষ্টা পরিষদের কয়েকজন সদস্য বক্তব্য রাখেন। তারা বলেন, আন্তর্জাতিক পরিস্থিতিতে নানা ষড়যন্ত্র চলছে। কাজেই আমাদের ‘সকলের সঙ্গে বন্ধুত্ব, কারও সঙ্গে বৈরিতা নয়’ বঙ্গবন্ধুর এই নীতি ও আদর্শকে অনুসরণ করে চলতে হবে। এটা থেকে বিচ্যুত হওয়া যাবে না। প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে তারা বলেন, প্রধানমন্ত্রী যেভাবে সবকিছু মোকাবেলা ও ব্যালেন্স করছেন- সেটা দৃষ্টান্তমূলক ও অভাবনীয়।

সূত্র জানায়, জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, জাতীয় স্বার্থ রক্ষা করে যেসব পদক্ষেপ প্রয়োজন, সেসব পদক্ষেপই তিনি নিচ্ছেন এবং নিয়ে যাবেন। উপদেষ্টা পরিষদ সদস্যদের দলের ‘থিঙ্ক ট্যাঙ্ক’ অ্যাখ্যা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী দল পরিচালনার ক্ষেত্রে তাদের পরামর্শও চেয়েছেন। তিনি বলেন, দলের জাতীয় সম্মেলন সামনে রেখে দলীয় গঠনতন্ত্র, ইশতেহার ও ঘোষণাপত্রের যুগোপযোগী সংস্কার, দলের আগামী দিনের পরিকল্পনা অর্থাৎ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় গেলে দেশের উন্নয়ন কী করা হবে- এসব বিষয়েও উপদেষ্টা পরিষদ সদস্যরা পরামর্শ দিতে পারেন।

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –