• সোমবার   ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ৫ ১৪২৮

  • || ১১ সফর ১৪৪৩

সর্বশেষ:
বাংলাদেশিদের জন্য থাইল্যান্ডের ভিসা চালু হচ্ছে সোমবার বিএনপিকে দেশে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করতে দেওয়া হবে না- কৃষিমন্ত্রী তুলাই নদীতে গতি ফিরলেও বিএনপির রাজনীতিতে ফেরেনি- প্রতিমন্ত্রী ধর্ষণের শিকার হয়ে বিয়ে ভেঙে গেল তরুণীর আর্থ-সামাজিক প্রবৃদ্ধি ত্বরান্বিত করবে হাইস্পিড রেল

বাড়ি পরিষ্কার করার কাজ শুরু করুন রান্নাঘর থেকে

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১০ সেপ্টেম্বর ২০২১  

বাড়ি পরিষ্কার করার কাজ শুরু করুন রান্নাঘর থেকে। গ্যাসের কারণে রান্নাঘরে চিটচিটে ভাব আসে। রান্না করতে গিয়ে তেল-মশলার ছিটে পরে কিচেন স্ল্যাব অপরিষ্কার ও অপরিচ্ছন্ন হয়ে যায়। আর প্রতিদিন রান্নাঘর তেল চিটচিটে থাকলে কারো ভালো লাগে না।

এর থেকে মুক্তি পেতে চাইলে এই নিয়মগুলো মেনে চলুন-

রান্নাঘর খোলামেলা রাখুন আর রান্না করার সময় দরজা জানলা খুলে রাখুন।
রান্না ঘরের মধ্যে বেশি জিনিসপত্র রাখবেন না। ফ্রিজ ওভেন ইত্যাদি রান্নাঘরের বাইরে রাখার চেষ্টা করুন।
রান্নাঘরে অবশ্যই ভেন্টিলেটর,এগজস্ট ফ্যান ইত্যাদি রাখার চেষ্টা করুন। এতে রান্নাঘর থেকে উৎপন্ন হওয়া তেল ধোয়া বাষ্প বাইরে বেরিয়ে যাবে আর রান্নাঘরের মধ্যে তেল চিটচিটে ভাবটাও কম হবে।
রান্নাঘরের ব্যবহৃত বিভিন্ন জিনিসপত্র যেমন বিভিন্ন মশলার কৌটো, আনুষঙ্গিক সামগ্রী সপ্তাহে অন্তত একদিন পরিষ্কার করুন।
প্রতিদিন রান্না করার পর ওভেন পরিষ্কার করুন। লিকুইড ক্লিনার দিয়ে ওভেনের আশপাশও পরিষ্কার করে নিন।
রান্নাঘরের জানালার গ্রিলেও তেল ও ঝুল আটকায়। তাই কিছুদিন পরপর সাবান জলে ভিজিয়ে স্পঞ্জ বা কাপড় দিয়ে রান্নাঘরের জানালার গ্রিল পরিষ্কার করুন।
রান্নাঘরে মোটা ঝুল জমে বেশি। এছাড়া রান্না করবার সময় রান্না করা তেল পুড়ে ওপর দিকে ওঠে। তাই রান্নাঘরে চিটচিটে ভাব হয়ে যায়। তাই সপ্তাহে একবার রান্নাঘরের ঝুল পরিষ্কার করুন।
রান্নাঘরের ব্যবহৃত বিভিন্ন জিনিসপত্র যেমন বিভিন্ন মশলার কৌটো, আনুষঙ্গিক সামগ্রী সপ্তাহে অন্তত একদিন পরিষ্কার করুন।
এছাড়া কিচেন স্ল্যাব পরিষ্কার করার ও রান্না ঘরের তেল চিটচিটে ভাব ওঠানোর গৃহিণীর জন্য আরো কিছু রইলো টিপস-

ভিনিগার

পানির মধ্যে কয়েক ফোঁটা ভিনিগার মিশিয়ে নিন। এরপর কাপড় দিয়ে স্ল্যাবটি মুছে নিন। রোজ একবার করে রান্নার পরে যদি এটা করা যায় তাহলে তেল চিটচিটে ভাব খুব একটা হবে না কিচেন স্ল্যাবে। সব সময় আপনার রান্নাঘর পরিষ্কার ও সুন্দর থাকবে।

ডিটারজেন্ট

কুসুম গরম পানির মধ্যে কয়েক ফোঁটা ডিটারজেন্ট বা সার্ফ দিয়েও কিচেন স্ল্যাব মুছে নিতে পারেন। তবে এরপর এমনি কাপড় দিয়ে আর একবার মুছে নিতে হবে। সপ্তাহে দুই থেকে তিনবার এটি করলেই দেখবেন কাজ হচ্ছে।

পাতি লেবু, পানি ও একটু ডিটারজেন্ট

একটি পাত্রে পাতি লেবু, পানি ও একটু ডিটারজেন্ট দিয়েও কিচেন স্ল্যাবটি মুছে নেওয়া যায়। পাতিলেবু ব্লিচিং হিসেবে ব্যবহৃত হওয়ার ফলে স্ল্যাব পরিষ্কারের সাথে সাথে চকচকে হয়ে ওঠে চোখের নিমেষে।
ডিশওয়াশার

ওয়াইপ স্পঞ্জে কয়েক ফোঁটা ডিশওয়াশার দিয়ে কিচেনের স্ল্যাব পরিষ্কার করা যায়। ডিশওয়াশার শুধু বাসন পরিষ্কার নয় রান্নাঘরের তেল চিটচিটে বোতল নানা জিনিস পরিষ্কার করতেও ব্যবহার করতে পারেন।

বেকিং সোডা

কিচেন স্ল্যাব টাইলসের হলে জলে কিছুটা বেকিং সোডা দিয়ে মুছে নিন। এর ফলে কিচেন স্ল্যাব ঝকঝকে তকতকে হয়ে যাবে।

লবণ

মার্বেলের বা টাইলসের কিচেন স্ল্যাব পরিষ্কার করতে লেবুর রসের সঙ্গে পরিমাণ মত লবণ মিশিয়ে নিন। খেয়াল রাখুন লবণের দানা গুলো যেন গলে যায়। এরপর এই মিশ্রণটি কিচেন স্ল্যাবের দাগ ঘষে মুছে ফেলুন। এরপর পরিষ্কার ভিজে কাপড় দিয়ে আর একবার মুছে নিন। দেখবেন দাগ পরিষ্কার হয়ে গেছে।
টুথপেস্ট

কিচেন স্ল্যাব এ দাগ ওঠাতে টুথপেস্ট ও ভীষণ কার্যকরী। দাগের উপর টুথপেস্ট দিন তারপর পনেরো থেকে কুড়ি মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর একটি কাপড়ে একটু ডিটারজেন্ট নিয়ে ঘষতে থাকুন। দাগ উঠে যাবে।

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –