• মঙ্গলবার   ১৭ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২ ১৪২৯

  • || ১৩ শাওয়াল ১৪৪৩

সর্বশেষ:
আমাদের সজাগ থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রবেশপত্র সংগ্রহের আহ্বান দিনাজপুরে ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেলের ৩ আরোহী নিহত বাংলাদেশ থেকে কৃষি শ্রমিক নিতে জর্ডানের প্রতি আহ্বান মন্ত্রীর ‘আমাদের কৃষকদের উৎপাদিত ধান দিয়েই চালের চাহিদা মিটছে’

ঠাকুরগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেয়ে গৃহহীনদের মুখে হাসির ঝিলিক

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৯ এপ্রিল ২০২২  

আসন্ন পবিত্র ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে গত মঙ্গলবার তৃতীয় ধাপে ঠাকুরগাঁও জেলায় দুই হাজার ৬১২ ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহারের ঘর দেওয়া হয়েছে। ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক মাহাবুবর রহমান ও সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার আবু তাহের সামসুজ্জামান প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারদের দুই শতক জমিসহ ঘরের দলিল হস্তান্তর করেন প্রশাসনের কর্তা ব্যক্তিরা। নতুন ঘর পেয়ে আনন্দে আত্মহারা ভূমিহীনরা।

ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সারাদেশে এক-যোগে গৃহপ্রদান কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। তারই অংশ হিসেবে ঠাকুরগাঁওয়ে তৃতীয় পর্যায়ে ঘরের উদ্বোধন করেছেন। প্রতিটি ঘরের মূল্য ধরা হয়েছে ২ লাখ ৫৯ হাজার ৫০০ টাকা। তৃতীয় পর্যায়ে ঘর নির্মাণে ২২২.৭০ একর জমি উদ্ধার করা হয়েছে, যা ওই জমির আনুমানিক বাজার মূল্য প্রায় হাজার কোটি টাকা। অনিয়ম ও দুর্নীতির সঙ্গে কেউ যেন জড়িয়ে না পড়ে, সে কারণে জেলা প্রশাসন ও সদর ইউএনওসহ প্রশাসনের পক্ষ থেকে ঘর পাওয়া মানুষের তালিকা আগেই প্রচার করা হয়েছে। এতে যদি কোনও সচ্ছল ব্যক্তি তালিকায় থাকে তার নাম বাদ দেওয়া হবে। এছাড়া প্রতিটি ঘরে বিদ্যুৎ, পানি, ড্রেনেজ ও সেনিটেশনের ব্যবস্থা সম্পূর্ণ করা হয়েছে।

আকচা এলাকার ৭০ বছর বয়সী ময়না বেগম বলেন, “মোর মা শেখ হাসিনা হামারলার দিকে হাত বাড়াইছে। কাইল যখন রাইত মেম্বারটা কহিল মোক ঘর দিবে সাথে সাথে চার রাকাত নামাজ পইচ্ছু হামার প্রধানমন্ত্রীর মায়ের তানে। রাইত কাটার তাতে আর মাইনছের বাড়িত থাকিবা হবেনি।"

ফকিরপাড়া এলাকার আক্তারি  বলেন, “মঙ্গলবার হামারা নয়া বাড়ি পাইছি । মাইনছের বাড়িত ১০০০ টাকা ভাড়া দিহানে আর থাকিবা হবেনি।”

এসময় পাশে থাকা অসুস্থ স্বামী দুলালের দুচোখ ছলছল করছে। তিনি বলেন, “মুই খুবেই অসুস্থ। মানুষের কাছত ভিক্ষা করে নিজের চিকিৎসা কইচ্ছু। কাহো আগায় আসেনি। নিজের থাকার তানে একটু মাটিও নাই। এক লোকের মাধ্যমে সদর উপজেলা ইউএনও অফিসত আবেদন করিনু। পরে শুনিনু মোর নামে ঘর দিছে। মুই গরিব, নিজের ঘরত থাকিম, কোন দিনও  স্বপ্নেও ভাবুনি। প্রধানমন্ত্রী হামাক বাড়ি ও দলিল দিবে খুব আনন্দ লাগছে। ঈদ না আসতেই আজ হামাক ঈদের মতো আনন্দ লাগেছে।”

ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক (ডিসি) মাহাবুবর রহমান বলেন, গত মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ভূমিহীন, গৃহহীন দুই হাজার ৬১২টি পরিবারকে দুই শতক জমিসহ ঘরের দলিল হস্তান্তর করেছেন।

তিনি আরও বলেন, কেউ যাতে দুর্নীতি করতে না পারে প্রশাসনের পক্ষে কঠোর নজরদারি করা হচ্ছে। প্রকৃত ভূমিহীন ও গৃহহীনদের নামের তালিকা করে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার দেওয়া হয়েছে।

###বিডি প্রতিদিন

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –