• শনিবার   ১৬ অক্টোবর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ৩০ ১৪২৮

  • || ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

সর্বশেষ:
পূজামণ্ডপে অরাজকতা সৃষ্টির অপচেষ্টাকারীরা পার পাবে না- প্রধানমন্ত্রী ‘কোনো সুস্থ ধর্মপ্রাণ ব্যক্তি অন্য ধর্মে আঘাত করতে পারে না’ নির্বাচন সামনে রেখে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির মাথাচাড়া- কাদের মণ্ডপে মণ্ডপে বেজে উঠেছে বিদায়ের সুর কারিগরি ত্রুটির কারণে মোবাইল অপারেটরে ইন্টারনেট সেবা বিঘ্নিত

রংপুরে একদিনে দুই শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা 

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১  

রংপুরের পীরগঞ্জ ও পীরগাছা উপজেলায় একদিনে দুই শিক্ষার্থী ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। তাদের একজন কলেজছাত্রী বর্ণি আক্তার (১৮)। অপরজন মাদরাসাপড়ুয়া নাহিদ মিয়া (১৫)। সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে সন্ধ্যার মধ্যে আত্মহত্যার এ দুটি ঘটনা ঘটে। 

পীরগাছা থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সোমবার বিকেলে উপজেলার কৈকুড়ী ইউনিয়নের নজর মামুদ গ্রামে নিজ বাড়ি থেকে বর্ণি আক্তার নামে এক শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিজ ঘরে ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে। তবে কী কারণে আত্মহত্যা করেছে, তা জানা যায়নি।

বর্ণি আক্তার ইটভাটা ব্যবসায়ী হারুন অর রশিদ বাবলুর মেয়ে। তিনি পীরগাছা দেবী চৌধুরানী ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থী। 

অন্যদিকে, একই দিন সকালে পীরগঞ্জের কাবিলপুর ইউনিয়নের গাংজোয়ার হলদিবাড়ি গ্রাম থেকে মাদরাসা ছাত্র নাহিদ মিয়া লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত নাহিদ মিয়া ওই গ্রামের শাহজালাল মিয়ার ছেলে। সে চতরা হাফিজিয়া মাদরাসার হেফজ বিভাগের ছাত্র ছিল।

জানা গেছে, নাহিদের মা পারিবারিক কলহের জেরে সংসার ছেড়ে অন্যত্র চলে গেছেন। আর বাবা শাহজালাল সন্তানদের গ্রামে রেখে ঢাকায় থাকতেন। এতে মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে শিশু নাহিদ। বেশ কিছুদিন ধরে মানসিক রোগেও ভুগছিল সে। এ কারণে নাহিদ মাদরাসা যাওয়া বন্ধ করে দেয়। 
পরিবারে দুই ভাই এক বোনের মধ্যে নাহিদ ছিল সবার ছোট। সোমবার সকালে নাহিদ সবার অজান্তে নিজ ঘরে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে।

পীরগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সরেস চন্দ্র ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, কোনো অভিযোগ না পাওয়ায় মরদেহ দাফনের অনুমতি দেয়া হয়েছে।

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –