• মঙ্গলবার   ১৭ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২ ১৪২৯

  • || ১৩ শাওয়াল ১৪৪৩

সর্বশেষ:
আমাদের সজাগ থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রবেশপত্র সংগ্রহের আহ্বান দিনাজপুরে ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেলের ৩ আরোহী নিহত বাংলাদেশ থেকে কৃষি শ্রমিক নিতে জর্ডানের প্রতি আহ্বান মন্ত্রীর ‘আমাদের কৃষকদের উৎপাদিত ধান দিয়েই চালের চাহিদা মিটছে’

ওজন কমানোর নয়া কৌশল 

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২০ মার্চ ২০২২  

বাড়তি ওজন নিয়ে দুশ্চিন্তার শেষ থাকে না। কারণ এই বাড়তি ওজনই দেহে নানা রোগের সৃষ্টি করে। তাইতো ওজন কমাতে কত কি না করেন মানুষ। অনেকেই আবার ওজন কমানোর জন্য সহজ উপায় খুঁজতে থাকেন। আসলে ওজন কমানোর কোনো অতি সহজ উপায় নেই।

পরিশ্রম করে ঘাম ঝরিয়ে রোগা হওয়া সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর। প্রতি দিন পুষ্টিবিদের পরামর্শ মতো খাওয়া, ব্যায়াম ও পর্যাপ্ত ঘুমের উপর ভরসা করে ওজন কমানোর পদ্ধতি অনেকেই মেনে চলেন। এত কিছুর মধ্যেও কয়েকটি বিষয় মাথায় রাখলে ওজন ঝরানো অনেক সহজ হয়ে যায়। কোন কোন বিষয়ে দিতে হবে বাড়তি মনোযোগ, চলনু জেনে নেয়া যাক-

ভারী প্রাতরাশ করুন
ওজন কমবে দ্রুত, এই ভাবনায় অনেকে সকালের খাবার খান না। আজকাল অনেকের মধ্যেই এই প্রবণতা দেখতে পাওয়া যায়। এতে হিতে বীপরিত হয়। কারণ সকালের খাবারের উপর নির্ভর করে সারা দিনের শরীরের হালচাল। রাতের খাবারের পর প্রায় ৭-৮ ঘণ্টা পেট খালি থাকে। তাই সকালে তাড়াতাড়ি এবং স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া জরুরি। সঠিক সময়ে প্রাতরাশ করার অভ্যাস হজমশক্তির উন্নতি ঘটায়। বাড়তি মেদ ঝরাতে সাহায্য করে।

রাতে পরিমাণে কম ও হালকা খাবার খান
গবেষণা বলছে, যারা সকালে ভারী এবং পুষ্টিকর খাবার খান, তাদের দ্রুত ওজন ঝরার সম্ভাবনা অনেক বেশি। বরং রাতের খাবারে কাটছাট করা প্রয়োজন। রাতে পরিমাণে কম এবং হালকা খাবার খাওয়া শরীরের জন্য ভাল নয়। বেশি রাত করে তেল-মশলা জাতীয় ভারী খাবার খেলে বাড়তে পারে ওজন। রক্তচাপের মাত্রাও বৃদ্ধি পেতে পারে।

সকালে ভারী খাবার খাওয়ার অভ্যাস যেমন ওজন ঝরাতে, শরীর সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। তেমনই রাতে ভারী খাবার খেলে ওজন তো কমেই না। বরং আরো বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। সেই সঙ্গে বদহজম, বুক জ্বালা, রক্তে শর্করার পরিমাণ বেড়ে যাওয়ার মতো সমস্যার সৃষ্টি হয়।

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –