• সোমবার   ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ৫ ১৪২৮

  • || ১১ সফর ১৪৪৩

সর্বশেষ:
বাংলাদেশিদের জন্য থাইল্যান্ডের ভিসা চালু হচ্ছে সোমবার বিএনপিকে দেশে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করতে দেওয়া হবে না- কৃষিমন্ত্রী তুলাই নদীতে গতি ফিরলেও বিএনপির রাজনীতিতে ফেরেনি- প্রতিমন্ত্রী ধর্ষণের শিকার হয়ে বিয়ে ভেঙে গেল তরুণীর আর্থ-সামাজিক প্রবৃদ্ধি ত্বরান্বিত করবে হাইস্পিড রেল

বেরোবি ছাত্র-শিক্ষকের ওপর হামলার প্রতিবাদে মহাসড়ক অবরোধ

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১০ সেপ্টেম্বর ২০২১  

রংপুরে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীকে ছিনতাইকারীরা কুপিয়ে জখম করার প্রতিবাদ জানিয়েছে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) বিকেল থেকে সন্ধা পর্যন্ত ক্যাম্পাস সংলগ্ন পার্কের মোড় এলাকায় বৃষ্টিতে ভিজে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে প্রতিবাদ জানানো হয়। পরে ঘণ্টাব্যাপী ঢাকা-রংপুর মহাসড়ক অবরোধ করে হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবি জানানো হয়।

এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর আনোয়ারুল আজিম বাদি হয়ে থানায় মামলা করেছেন। সন্দেহভাজন একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন। ন্যাক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, কিছুদিন আগেও দুই শিক্ষার্থীকে মেসে ঢুকে কুপিয়ে আহত করে মালামাল ছিনতাই করা হয়। সে ঘটনায় প্রশাসন তেমন কোন পদক্ষেপ নেয়নি। যার ফলে দুর্বৃত্তরা আরও সাহস পেয়ে এমন ঘটনা আবারও ঘটিয়েছে। পুলিশ প্রশাসনের নাকের ডগায় এ ঘটনা ঘটলেও তারা কিছুই করতে পারেনি। একটি বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় সাধারণ শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা যদি পুলিশ দিতে না পারে তাহলে এটি দুঃখজনক ঘটনা। আমরা এ ঘটনার বিচার চাই।

সহযোগী অধ্যাপক উমর ফারুক বলেন, ‘রাত ২টা কিংবা ভোর ৫টা হোক বিশ্ববিদ্যালয়ের এলাকায় শিক্ষক-শিক্ষার্থীর নিরাপদ চলাচল নিশ্চিত করতে ব্যর্থ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনসহ স্থানীয় প্রশাসন।’ দুর্বৃত্তদের দ্রুত শাস্তি নিশ্চিত এর দাবিও জানান তিনি।

এদিকে আহত শিক্ষার্থী পরাগকে উন্নত চিকিৎসার জন্য দুপুরে সৈয়দপুর থেকে বিমানযোগে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। দুপুর আড়াইটার ফ্লাইটে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের সহযোগিতায় তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়। তার চিকিৎসার দেখভাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন করার ঘোষণা দিয়েছেন। অপরদিকে শিক্ষার্থীকে কুপিয়ে আহত করে মোবাইল ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর আনোয়ারুল আজিম তাজহাট থানায় মামলা দায়ের করেছেন। এতে তিনি অজ্ঞাতনামা বেশ কয়েকজনকে আসামি করেছেন। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে উত্তর আশরতপুর এলাকার রিফাত হোসেন আলফি নামে একজনকে আটক করেছে তাজহাট মেট্রোপলিটন পুলিশ।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর আনোয়ারুল আজিম বলেন, ‘আহত শিক্ষার্থীকে উন্নত ও সঠিক চিকিৎসার জন্য ঢাকায় বিমানযোগে পাঠানো হয়েছে। আহতদের চিকিৎসার সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।’

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক ইজার আলী বলেন, ‘আমরা এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে রিফাত নামে একজনকে আটক করেছি। এছাড়াও জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।’

তাজহাট মেট্রোপলিটন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আখতারুজ্জামান প্রধান বলেন, শিক্ষার্থীকে কুপিয়ে আহতর ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আমরা সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় নিরাপত্তা নিশ্চিতে পুলিশ সজাগ রয়েছে।

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –