• শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৩ ১৪৩১

  • || ১১ মুহররম ১৪৪৬

সর্বশেষ:
সর্বোচ্চ আদালতের রায়ই আইন হিসেবে গণ্য হবে: জনপ্রশাসনমন্ত্রী। ২৫ জুলাই পর্যন্ত এইচএসসির সব পরীক্ষা স্থগিত।

কাবাঘরের নতুন চাবি সংরক্ষক হলেন যিনি

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৬ জুন ২০২৪  

ড. শায়খ সালেহ বিন জয়নুল আবেদিন আল-শাইবির ইন্তকালের পর পবিত্র কাবাঘরের চাবি সংরক্ষণের দায়িত্ব কে পাচ্ছেন তা নিয়ে কৌতূহল ছিল। অবশেষে ঘোষণা করা হলো নতুন চাবি সংরক্ষকের নাম। তিনি হলেন আবদুল ওয়াহাব বিন জাইন আল-আবিদিন আল-শাইবি।

সোমবার আনুষ্ঠানিকভাবে সৌদি আরবে বিশিষ্ট ব্যক্তি ও অভিজাত পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে তার হাতে পবিত্র কাবাঘরের চাবি তুলে দেওয়া হয়। এখন থেকে তিনিই পবিত্র ঘরের চাবি সংরক্ষণের দায়িত্ব পালন করবেন।

কাবার চাবির দায়িত্ব গ্রহণের সময় শায়খ আবদুল ওয়াহাব আল-শাইবি তার ওপর আস্থা রাখার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং পবিত্র কাবাঘরের ঐতিহ্য ও পবিত্রতা বজায় রাখার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন। তিনি মুসলিমদের মধ্যে ঐক্য ও ভ্রাতৃত্ববোধ বজায় রাখার আহ্বান জানান এবং মুসলিম বিশ্বের সেবায় তার পূর্বসূরিদের মতো অবদান রাখার অঙ্গীকার করেন।

কাবাঘরের চাবি সংরক্ষণের নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত শায়খ আবদুল ওয়াহাব আল শাইবি রাসুলুল্লাহ (স.)-এর বিখ্যাত সাহাবি উসমান (রা.)-এর ১১০তম উত্তরসূরি। জাহেলি যুগ থেকেই কাবাঘরের চাবি শাইবা গোত্রের কাছে থাকতো। মক্কা বিজয়ের দিন রাসুলুল্লাহ (স.) নিজেই ঐ গোত্রের উসমান ইবনে তালহা (রা.)-এর কাছে চাবি হস্তান্তর করে তাকে সম্মানিত করেন। এ সময় রাসুলুল্লাহ (স.) বলে দেন, ‘এখন থেকে এ চাবি তোমার বংশধরের হাতেই থাকবে, একেবারে কেয়ামত পর্যন্ত। তোমাদের হাত থেকে এ চাবি কেউ নিতে চাইলে সে হবে জালিম।’

সেই ধারা এখনো চলমান। তাদের কাছ থেকে চাবি নিয়েই বিভিন্ন সময় সৌদি আরবের বাদশাহ এবং গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ পবিত্র কাবাঘরে প্রবেশ করে থাকেন। তারাই কাবার দরজা খুলে দেন।

এতদিন পবিত্র কাবাঘরের চাবি সংরক্ষণের দায়িত্বে ছিলেন ড. শায়খ সালেহ বিন জয়নুল আবেদিন আল-শাইবি। গত ২১ জুন রাতে মক্কায় মারা যান তিনি। পরদিন ২২ জুন পবিত্র মসজিদুল হারামে জানাজার পর তাকে জান্নাতুল মুয়াল্লায় দাফন করা হয়।

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –