• মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩ ১৪৩১

  • || ১০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

বাংলা ভাষার ১৬ টুলস উন্নয়নে কাজ করছে সরকার

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১২ নভেম্বর ২০২৩  

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, বাংলা ভাষার ১৬টি টুলস উন্নয়নের জন্য কাজ করছে সরকার।

মোস্তাফা জব্বার শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে ‘অন্যদিন হুমায়ুন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার ২০২৩’ উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন। ‘অন্যদিন  ও এক্সিম ব্যাংক’ এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

ইমেরিটাস অধ্যাপক সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে, অধ্যাপক মো. জাফর ইকবাল, সাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলন, অভিনেত্রী মেহের আফরোজ শাওন, অন্যদিন সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম, এক্সিম ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহ মো. আবদুর বারী ও নবীন সাহিত্যিক মাহবুব ময়ূখ রিশাদ বক্তৃতা করেন।

বাংলাদেশ স্বাধীন না হলে বাংলা ভাষা ও সাহিত্যের এতটা বিকাশ হতো না উল্লেখ করে মোস্তাফা জব্বার বলেন, বাংলাদেশ স্বাধীন না হলে হুমায়ুন আহমেদের মতো সাহিত্যিকদেরও আত্মপ্রকাশের সুযোগ সৃষ্টি হতো না। ভারতের পশ্চিম বাংলায় আধুনিক বাংলাসাহিত্য এবং বাংলা ভাষায় প্রকাশনার উন্মেষ ও বিকাশ সাধিত হলেও বিশ্বের ৩৫ কোটি বাংলা ভাষাভাষির জন্য বাংলাদেশই হচ্ছে বাংলা ভাষার রাজধানী। বাংলাদেশই ডিজিটাল প্রযুক্তিতে বাংলার এনকোডিং ও কিবোর্ডের মান প্রমিত করেছে। 

নতুন প্রজন্মকে গল্প, উপন্যাস তথা সাহিত্য বই পড়ার আগ্রহ সৃষ্টিতে হুমায়ুন আহমেদের অবদান তুলে ধরেন ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী। তিনি বলেন, বাংলা সাহিত্য বৈশ্বিক নেতৃত্বের আসনে উপনীত হওয়ার জন্য হুমায়ুন আহমেদের অবদান চির অম্লান হয়ে থাকবে। 

তিনি বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচির  ধারাবাহিকতায় ডিজিটাল প্রযুক্তিতেও বাংলা ভাষার অভাবনীয় বিকাশ ঘটেছে। পৃথিবীর এমন কোনো ডিজিটাল প্রযুক্তি নাই যেখানে বাংলা লেখা যাবে না বলেও মন্ত্রী উল্লেখ করেন।

উল্লেখ্য, এ বছর (২০২৩) হুমায়ুন সাহিত্য পুরস্কার পেয়েছেন দুই প্রজন্মের দু’জন সাহিত্যিক। সাহিত্যে সামগ্রিক অবদানের জন্য এবার পুরস্কার পেয়েছেন ইমদাদুল হক মিলন। এছাড়া নবীন সাহিত্য বিভাগে পুরস্কার পেয়েছেন মাহবুব ময়ূখ রিশাদ। 

‘এক্সিম ব্যাংক-অন্যদিন’ হুমায়ুন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার প্রদান ২০১৫ সাল থেকে শুরু হয়।

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –