• মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩ ১৪৩১

  • || ১০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

পাশাপাশি স্বামী-স্ত্রী ও ছেলের দাফন, গ্রামজুড়ে শোকের মাতম

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২ অক্টোবর ২০২৩  

সাভারের আশুলিয়া থেকে গলা কাটা অবস্থায় উদ্ধার হওয়া স্বামী-স্ত্রী ও একমাত্র ছেলের মরদেহ ময়নাতদন্ত শেষে গ্রামের বাড়ি ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার কোষারণীগঞ্জ ইউনিয়নের রামদেবপুর ফুলবাড়িতে দাফন করা হয়েছে।

সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ফুলবাড়ী জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে তাদের পৃথক জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পরে স্থানীয় কবরস্থানে দাফন করা হয় তাদের। এর আগে, ভোরে ওই তিনজনের মরদেহ বাড়িতে পৌঁছালে কান্নায় ভেঙে পড়েন স্বজনসহ এলাকাবাসী। শেষ বারের মত তাদের মরদেহ দেখতে ভিড় জমান আশপাশের মানুষ। 

ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা, পীরগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি জয়নাল আবেদিন বাবুল ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আজাহারুল ইসলাম রাজাসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ জানাজায় অংশ নেন।

এদিকে আলোচিত এই ট্রিপল মার্ডারের রহস্য উম্মোচন করে দোষীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবি করছেন নিহতের স্বজন ও এলাকাবাসী।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার সন্ধ্যায় ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার ফুলবাড়ি (গরুড়া) গ্রামের মৃত জহির উদ্দিনের ছেলে মোক্তার হোসেন, তার স্ত্রী শাহিদা বেগম ও তাদের ছেলে মেহেদী হাসান জয়ের গলা কাটা মরদেহ সাভারের আশুলিয়ার জামগড়া ফকির বাড়ির মোড় এলাকার ৬ তলা ভবনের ৪ তলার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরে ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করে পুলিশ। মোক্তার ও শাহিদা পোশাক কারখায় কাজ করতেন। তাদের ছেলে জয় সাভারের একটি স্কুলে সপ্তম শ্রেণির ছাত্র ছিল। এ ঘটনায় অজ্ঞাতদের আসামি করে আশুলিয়া থানায় হত্যা মামলা করেন নিহত মোক্তার হোসেনের বড় ভাই আইনাল হক।

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –