• বুধবার ২২ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৮ ১৪৩১

  • || ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪৫

মিয়ানমারের ১৭৯ সেনাকে ফেরত পাঠাতে প্রস্তুত বাংলাদেশ

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৭ মার্চ ২০২৪  

চলমান রোহিঙ্গা সংকটের মধ্যেই মিয়ানমারের সঙ্গে ‘বন্দি বিনিময়ের’ ব্যবস্থা করেছে বাংলাদেশ। এ প্রক্রিয়ায় মিয়ানমারের জান্তা বাহিনীর ১৭৯ সদস্যকে ফেরত পাঠাতে প্রস্তুত বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। বিনিময়ে মিয়ানমারে আটক দুই শতাধিক বাংলাদেশিকে ফিরিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে দেশটির জান্তা সরকার।

বিএনএন ব্রেকিং এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, রাখাইন রাজ্যে আরাকান আর্মির (এএ) কাছে পরাজিত হওয়ার পর টেকনাফের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে যায় মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সদস্যরা। এ ঘটনা মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ সংঘাতের প্রতিফলন।

গত ৭ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) এক কর্মকর্তাসহ মিয়ানমার সেনাবাহিনীর একটি দলকে আটক করে বিজিবি। তাদের বিরুদ্ধে ২০১৭ সালের রোহিঙ্গা গণহত্যায় জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, এটি কোনো স্বাভাবিক ‘বন্দি বিনিময়’ বা ‘প্রত্যাবাসন’ নয়; বরং চলমান রোহিঙ্গা সংকটের মধ্যে বাংলাদেশ-মিয়ানমারের মধ্যে একটি জটিল কূটনৈতিক সম্পৃক্ততার ইঙ্গিত দেয়। কারণ, সেই সময় মিয়ানমারের সেনা সদস্যরা বাংলাদেশে আশ্রয় চেয়েছিল, কিন্তু পরবর্তীতে তারা নিজ দেশে ফিরে যাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছে।

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন
এদিকে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বাংলাদেশের জন্য বর্তমানে একটি উদ্বেগের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ, রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের ধারাবাহিক প্রচেষ্টা থমকে গেছে। শরণার্থীরা মিয়ানমারে ফিরে যাওয়ার আগে নিজেদের নিরাপত্তা ও নাগরিকত্ব নিশ্চিতের দাবি জানিয়েছে।

অন্যদিকে, রাখাইন রাজ্যে থাকা আনুমানিক ৬ লাখ রোহিঙ্গার কারণে পরিস্থিতি আরো জটিল ও ভয়াবহ হয়েছে। এ অবস্থায় বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যে ‘বন্দি বিনিময়’ শুধু বন্দিদের প্রত্যাবাসন নয়, এটি এ অঞ্চলে বৃহত্তর ‘ভূ-রাজনৈতিক’ ও ‘মানবিক চ্যালেঞ্জের" প্রতিফলন।

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –