• মঙ্গলবার   ২১ মার্চ ২০২৩ ||

  • চৈত্র ৬ ১৪২৯

  • || ২৬ শা'বান ১৪৪৪

সর্বশেষ:
জনগণ বিএনপি-জামায়াতকে আর ক্ষমতায় আসতে দেবে না: প্রধানমন্ত্রী তথ্য-প্রযুক্তি ও যোগাযোগ খাতে বাংলাদেশে বিপ্লব ঘটেছে: স্পিকার বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের প্রশ্নে কখনো আপস নয়-পানিসম্পদ উপমন্ত্রী ১১০০ রোহিঙ্গাকে প্রত্যাবাসনের প্রক্রিয়া চলছে: পররাষ্ট্র সচিব ভারতকে চট্টগ্রাম ও সিলেট বন্দর ব্যবহারের প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর

নতুন সংসার সাজান বুদ্ধি করে     

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১২ মার্চ ২০২৩  

নতুন সংসার মানে চারিদিকে সবই নতুন নতুন বাসা নতুন দুটো মানুষ একটা নতুন পরিবার সঙ্গে রইল নতুন ফার্নিচার। তবে সদ্য বিবাহিত জীবনে শুরুতেই খুব দামি ফার্নিচার দিয়ে সংসার শুরু করাটা সবার পক্ষে সহজ হয়ে ওঠে না। বর্তমান বাজারে সবকিছু হাতের নাগালের বাইরে চলে যাওয়ায় কোনটা কিনবেন আর কোনটা পরে কিনবেন এটা চিন্তা করতে অনেক সময় পার হয়ে যায়। তবেই বললে তো হবে না ঘরকে সুন্দর করে সাজানোর জন্য অবশ্যই বেশ কিছু ভাবে প্রয়োজন রয়েছে। তবে এক্ষেত্রে আমরা প্রয়োজনীয় এবং দরকারি জিনিসগুলো আগে কিনব কিছু শখের জিনিস থাকে সেগুলো সম্ভব না হলে পরে নেওয়া যাবে। 

সবার আগে প্রাধান্য দিতে হবে দুজনের যে রুমটা। সেই রুমের আকৃতি রং আকার ফার্নিচার পছন্দ করতে হবে কারণ ফার্নিচার কিনে রুমে বসানোর সময় যাতে কোন প্রকার বিড়ম্বনার শিকার না হতে হয়।  এছাড়াও ফার্নিচার কেনার জন্য দুজন মানুষকে সম্মিলিতভাবে এই জিনিসগুলো পছন্দ করতে হবে। এবার আসি ফার্নিচারে:

একের অধিক ব্যবহার করা যায় এমন
এখনকার সময় বাসা বাড়িগুলো বেশ ছোট হয়।  তাই জিনিসপত্র এরকম ভাবে কিনতে হবে যেটা মধ্যে এক কাজে ব্যবহার না করা  দুই তিনটা কাজে আমরা ব্যবহার করতে পারি। যেমন ডিভান যেটাকে আপনি প্রয়োজনে সোফা বানিয়ে রাখতে পারবেন আবার প্রয়োজনে খাট। বুকসেলকাম কেবিনেট ওপরের দিকে বইগুলো রাখা গেল আর কেবিনের ভেতরে কিছু প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র এতে করে জায়গা এবং খরচ দুটোই সাশ্রয় হয়। ফার্নিচার কিনার ক্ষেত্রে একের অধিক ব্যবহার করা যায় এই জিনিসটা মাথায় রাখতে হবে।

খাট কেনার ক্ষেত্রে
শুরুতেই খুব বড়সড়ক খাটকে নিয়ে ঘরের জায়গাকে ব্লক করা যাবে না। খাট্টা মিডিয়াম সাইজের একটা স্ট্যান্ডার ডিজাইন এবং যেটা দীর্ঘদিন ব্যবহার করা যাবে। তবে ডিজাইন টা একটু আধুনিক রাখার চেষ্টা করুন তবে চেষ্টা করুন ড্রয়ার সিস্টেম খাট কেনার এতে করে আপনি আপনার প্রয়োজনীয় চাদর কভার কুশন এ সমস্ত জিনিস রাখতে পারবেন। 

অন্যান্য আসবাব
অন্যান্য বলতে আপনি কি বুঝছেন ? এখানে আমি বোঝাতে চাচ্ছি এক কথায় একটা ঘর সাজানোর জন্য যা যা প্রয়োজন। যা দুজনে একত্রিত হবে ব্যবহার করতে পারবে এই যেমন একটা আলমারি যেটা দুইজনেই একত্রিত হবে ব্যবহার করতে পারবে। 

ড্রেসিং টেবিল কিংবা লংমিরর ড্রেসিং টেবিল । যাতে করে দু'জনকে একটু বটম দেখা যায়। লং মিরর ড্রেসিং টেবিল গুলোর সুবিধা হচ্ছে আপনি চাইলে ওটাকে একটা বড় দরজা দিতে পারবেন আর সেটার ভিতরে আপনি আপনার প্রয়োজনীয় যতো আছে তা রাখতে পারবেন।

এটা ল্যাম্প রাখুন এতে করে ঘরের সৌন্দর্য বৃদ্ধি পাবে এবং রাতে ঘুমানোর সময় লাইনটা জানিয়ে ঘুমালে সুবিধা হবে ল্যাম্পের আলোটা ঘরকে আকর্ষণীয় করে তোলে।  

এছাড়াও ঘরের মধ্যে আর কি ফার্নিচার রাখা যায় সেটা নির্ভর করছে আপনাদের দুজনের প্রয়োজন এবং চাহিদার ওপর কারো চাহিদা বা প্রয়োজন হতে পারে একটা স্টাডি টেবিল কারো হতে পারে একটা ওয়ারড্রব কারো কম্পিউটার টেবিল তাই সে ক্ষেত্রে নিজেদের চাহিদা বুঝে ঘরের আসবাব কিনুন। 

আসবাবের দাম ও মান
আসবাবের  দাম মান নির্ভর করবে অবশ্যই দামের ওপর। কিন্তু এর মানে এই না যে কম দামি ফার্নিচারের মান খুব খারাপ হবে। শুরুতেই সবার সামর্থ্য থাকে না খুব দামি ফার্নিচার কিংবা কাঠের ফার্নিচার নেওয়ার। স্টিল, মালয়েশিয়ান কাট , বোর্ড পছন্দ অনুযায়ী নিয়ে নিন। 

এই ফার্নিচার গুলো কোথায় পাওয়া যাবে
রাজধানীর রোকেয়া সরণিতে বেশ কিছু ফার্নিচারের দোকান রয়েছে। এছাড়াও রাজধানীর পান্থপথ, গুলশান ডিসিসি মার্কেট, লালবাগে। এছাড়াও সবাই তো আর রাজধানীর মধ্যে থাকে না আপনারা আপনাদের নিকটস্থ যেখানে সুলভ মূল্যে ফার্নিচার পাওয়া যায় সেই সমস্ত জায়গায় যোগাযোগ করে পছন্দসই ফার্নিচার নিয়ে নিতে পারেন।

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –