• বুধবার ২২ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৭ ১৪৩১

  • || ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪৫

প্রতিবন্ধী ভিক্ষুকের বয়স্ক ভাতা যাচ্ছে ইউপি সদস্যের ছেলের নম্বরে

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

সহিরন বেওয়া নামে এক বাকপ্রতিবন্ধী ভিক্ষুকের বয়স্ক ভাতার টাকা জালিয়াতির মাধ্যমে আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে ঠাকুরগাঁওয়ের সদর উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নে। 

অভিযুক্ত ইউপি সদস্যের নাম ফারুক। এ বিষয়ে ভুক্তভোগী নারীর লিখিত অভিযোগ তদন্ত করছে সমাজসেবা অধিদপ্তর। অভিযোগের বিষয়ে কোনো কথা বলতে রাজি হয়নি অভিযুক্ত ইউপি সদস্য ফারুক।

জানা যায়, ৯৩ বছর বয়সী সহিরন বেওয়া ওই ইউনিয়নের ফতেপুর গ্রামের মৃত মুনিরউদ্দীনের স্ত্রী। ভিক্ষা করে জীবন চলে তার। স্বামী মারা গেছে অনেক আগে। একমাত্র ছেলেকে নিয়ে অন্যের জমিতে বসবাস করেন তিনি। সংসারের প্রয়োজনে ভিক্ষা করেন সহিরন। তার বয়স্ক ভাতার কার্ড হয়েছে বেশ কয়েক বছর আগে। ২০২০ সালের জুন মাস পর্যন্ত ব্যাংকের মাধ্যমে বয়স্ক ভাতা পেয়েছেন সহিরন। পরে মোবাইলে ভাতা দেওয়া শুরু হলে সহিরনের মোবাইল নম্বরের জায়গায় ইউপি সদস্য ফারুকের ছেলে শাকিলের মোবাইল নম্বর দেওয়া হয়। তারপর থেকে সহিরন ভাতার টাকা পাচ্ছেন না। ইউপি সদস্য ফারুকের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, তার ভাতার কার্ডটি নষ্ট হয়ে গেছে। 

এদিকে চলতি মাসে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা সমাজসেবা অফিসের মাধ্যমে সহিরন জানতে পারেন তার ভাতার কার্ড বন্ধ হয়নি বরং টাকা চলে যাচ্ছে ইউপি সদস্য ফারুকের ছেলে শাকিলের মোবাইল নম্বরে। এমন অসহায় নারীর বয়স্ক ভাতার টাকা আত্মসাৎ করায় ইউপি সদস্য ফারুকের শাস্তির দাবি করছেন স্থানীয়রা। 

স্থানীয়রা বলছেন, অনেকের কাছে টাকা নিয়ে ভাতা কার্ড করে দেননি ইউপ সদস্য ফারুক। 

সু-শাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) ঠাকুরগাঁও জেলা শাখার সভাপতি প্রফেসর মনতোষ কুমার দে জানান, কিছু অসাধু জনপ্রতিনিধি এসব কাজে লিপ্ত। তাদের শাস্তির বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে সেই সঙ্গে নিজেদের আরও সচেতন হতে হবে। প্রকৃত ভাতা ভোগীরা যাতে ভাতা পায় সে জন্য প্রতি বছর লাইভ ভেরিফিকেশনের ব্যবস্থা চালু করতে হবে। 

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম জানান, সহিরনের অভিযোগটির তদন্ত চলছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ঠাকুরগাঁও জেলায় বয়স্ক, বিধবা ও প্রতিবন্ধী ভাতাভোগীর সংখ্যা ১ লাখ ৩৯ হাজার ৪৬৫ জন। লাইভ ভেরিফিকেশন সম্পন্ন হলে ভুয়া ভাতা ভোগীদের তালিকা বাতিল হবে সেই সঙ্গে প্রকৃত ভাতা ভোগীরা তাদের টাকা হাতে পাবে।

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –