• বুধবার ২২ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৮ ১৪৩১

  • || ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪৫

নানা আয়োজনে ইএসডিও’র তিন যুগ পূর্তি উদযাপন 

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৩ এপ্রিল ২০২৪  

নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ইকো-সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশনের (ইএসডিও) তিন যুগ পূর্তি উদযাপন করা হয়েছে। বুধবার (৩ এপ্রিল) ঠাকুরগাঁও জেলার গোবিন্দনগরস্থ সংস্থার প্রধান কার্যালয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

‘অবিরাম সাড়ে তিন দশক (১৯৮৮-২০২৪), তৃণমূল মানুষের সাথে তিন যুগ, তৃণমূল মানুষের পাশে তিন যুগ’ এই স্লোগানে অনুষ্ঠানমালায় সকালে জাতীয় পতাকা ও ইএসডিও’র পতাকা উত্তোলন করা হয়। এরপর স্মৃতিচারণ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় সংস্থাটির চেয়ারম্যান সফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন ইএসডিও’র প্রতিষ্ঠাতা নির্বাহী পরিচালক ড. মুহম্মদ শহীদ উজ জামান, তার সহধর্মিণী ও পরিচালক (প্রশাসন) এবং ইকো পাঠশালা অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ ড. সেলিমা আখতারসহ অন্যান্য অতিথিরা।

বুধবার সকালে এ উপলক্ষ্যে সংস্থাটির প্রধান কার্যালয় চত্বরে বেলুন উড়িয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর উদ্বোধন করেন ইএসডিও’র প্রতিষ্ঠাতা নির্বাহী পরিচালক ড. মুহম্মদ শহীদ উজ জামান এবং তার সহধর্মিণী ও পরিচালক (প্রশাসন) এবং ইকো পাঠশালা অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ ড. সেলিমা আখতার, ঠাকুরগাঁও জেলার বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও সুধীজন।

আলোচনা সভায় ইএসডিও’র প্রতিষ্ঠাতা নির্বাহী পরিচালক ড. মুহম্মদ শহীদ উজ জামান, তার সহধর্মিণী অধ্যক্ষ ড. সেলিমা আখতারের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ঠাকুরগাঁও জেলার বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এবং সুধীজন আলোচনায় অংশ নেন। সন্ধ্যায় সংস্থার আয়োজনে দোয়া ও ইফতার মাহফিলে অংশগ্রহণ করেন অতিথিবৃন্দ।

আলোচনা সভায় ইএসডিও’র প্রতিষ্ঠাতা নির্বাহী পরিচালক ড. মুহম্মদ শহীদ উজ জামান বলেন, ইএসডিও ১৯৮৮ সালে ঠাকুরগাঁওয়ে যাত্রা শুরু করে। সংস্থাটি গ্রামীণ জনসংখ্যার সামগ্রিক উন্নয়নের জন্য জীবিকা, দক্ষতা উন্নয়ন, স্বাস্থ্য, শিক্ষা, পানি ও স্যানিটেশন, পুষ্টি, মা ও শিশুর স্বাস্থ্যসেবা, রান্নাঘর, বাগান, টিকাদানের ক্ষেত্রে নিরন্তর কাজ করে চলছে। প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর উন্নয়নশীল চাহিদা থেকে ক্ষুদ্রঋণ, সামাজিক উন্নয়ন, খাদ্য নিরাপত্তা, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, কৃষি উন্নয়ন, পশুসম্পদ, মৎস্য, পানিসম্পদ ব্যবস্থাপনা, ঝুঁকিপূর্ণ শিশুর উন্নয়ন কাজ করে যাচ্ছে।

এ ছাড়াও কর্মক্ষেত্রে দারিদ্র্যমুক্ত ন্যায়সংগত সমাজ নিশ্চিত করার জন্য শ্রম হ্রাস, পাচার প্রতিরোধ, মানবাধিকার, বয়স্ক শিক্ষা, শিশু শিক্ষা, দক্ষতা উন্নয়ন কার্যক্রমের সাহায্যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে সংস্থাটি।

তিনি আরও বলেন, সংস্থার প্রধান কার্যালয় ঠাকুরগাঁও জেলায় অবস্থিত। বর্তমানে প্রায় ৮ হাজার কর্মকর্তা-কর্মচারী সংস্থায় কর্মরত রয়েছেন। বিশেষত নারীর ক্ষমতায়ন, প্রান্তিক মানুষের উন্নয়নের মূল স্রোতধারায় সম্পৃক্তকরণ এবং সার্বিকভাবে সকল অসুবিধাগস্ত মানুষের মুক্তিতে ইএসডিও’র অবিরাম যাত্রা অব্যাহত রয়েছে। ইএসডিও বাংলাদেশের ৮টি সিটি কর্পোরেশন, ৪৯টি জেলা, ৪২০টি উপজেলা, ১৪৩টি পৌরসভা ও ৩ হাজার ৩৮৮টি ইউনিয়নে উল্লিখিত কর্মসূচি পরিচালনা করছে। আন্তর্জাতিক ও দেশীয় উন্নয়ন সহযোগিতা, জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থা এবং বাংলাদেশ সরকারের বিভিন্ন বিভাগের ১২১টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। এর মধ্যে সামাজিক উন্নয়ন, দুর্যোগ মোকাবিলা, খাদ্য নিরাপত্তা, কৃষি, জেন্ডার, পুষ্টি, ক্ষুদ্র অর্থ, স্বাস্থ্য, পরিবেশ, অধিকার ও শাসন, শিক্ষা ও মানব উন্নয়নের ক্ষেত্রে বঞ্চিত মানুষের সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিভিন্ন প্রয়োজন-ভিত্তিক কর্মসূচির লক্ষ্যে কাজ করছে। তাদের জীবনকে প্রভাবিত করে এমন সমস্যার সমাধান করতে এবং নিপীড়ন ও শোষণ প্রতিরোধে একে অপরের সঙ্গে সহযোগিতা করার জন্য তাদের ক্ষমতায়ন করছে। এই ধরনের স্ব-প্রবর্তিত এবং স্বায়ত্তশাসিত কর্মের উদ্যোগ এমন একটি প্রেক্ষাপটে একটি গুরুত্বপূর্ণ অর্জন যেখানে বঞ্চিত মানুষ তাদের জীবিকা ও সামাজিক নিরাপত্তার জন্য নির্ভরশীল করতে নিরসলভাবে কাজ করছে। ইএসডিও গত তিন যুগে উন্নয়ন যাত্রায় বাংলাদেশের উন্নয়নের সর্বোত্তম পরিস্থিতি সামনে আনতে নিরলস প্রচেষ্টার ব্রত রয়েছে।

অধ্যক্ষ ড. সেলিমা আখতার বলেন, আজকের দিনটি আমাদের কাছে অত্যন্ত আনন্দের একটি দিন। এক এক করে আমরা প্রায় তিন যুগ পূর্ণ করেছি। আজকে এই তিন যুগে আমাদের শুভাকাঙ্ক্ষীসহ সবাইকে অনেক অনেক ধন্যবাদ এবং এই প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য এসব কর্মীরা কাজ করে গেছেন তাদেরকেও অনেক অনেক ধন্যবাদ।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মাহাবুবুর রহমান, পুলিশ সুপার উত্তম প্রসাদ পাঠক প্রমুখ।

উল্লেখ্য, উত্তর জনপদের পিছিয়ে পড়া মানুষের জন্য ১৯৮৮ সালের ৩ এপ্রিল সংস্থাটির যাত্রা শুরু হয়। শিক্ষা ক্ষেত্রে অসামান্য অবদানের জন্য ১৯৯৭ সালে সরকার এটিকে শ্রেষ্ঠ বেসরকারি সংস্থার পদকে ভূষিত করে। ২০০৬ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক সিটি ব্যাংক এনএ ক্ষুদ্র ঋণ বিতরণে শ্রেষ্ঠ সংস্থা হিসেবে সম্মাননা পায়। সমন্বিতভাবে মৌল-মানবিক চাহিদা পূরণের জন্য এসডিজি’র সকল লক্ষ্যমাত্রাকে কেন্দ্র করে কাজ করছে। ক্ষুধা, দারিদ্র, অপুষ্টি, নিরক্ষরতা দূরীকরণে এবং নারী-পুরুষ বৈষম্য হ্রাস, জলবায়ু পরিবর্তনজনিত অভিঘাত মোকাবিলা, পরিবেশ উন্নয়ন, সুশাসন, সকল ক্ষেত্রে ইএসডিও সরকার এবং স্থানীয় সরকারের সঙ্গে সুসমন্বয়ের মাধ্যমে কাজ করে যাচ্ছে। পারস্পরিক ভেদাভেদ মুক্ত বাংলাদেশ বিনির্মাণে ইএসডিও’র উন্নয়ন অভিযাত্রা অসীম।

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –