• বুধবার ২২ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৭ ১৪৩১

  • || ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪৫

কঠিন সময়ে কপিলের সমর্থন পেলেন বাবর

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৫ নভেম্বর ২০২৩  

এবারের বিশ্বকাপে সবমিলিয়ে মাত্র চারটি ম্যাচ জিতেছে পাকিস্তান। হতাশাজনক পারফরম্যান্সে সেমিফাইনালে না উঠেই দেশে ফিরেছে দলটি। ব্যর্থতার দায় সবচেয়ে বেশি এসেছে বাবর আজমের কাঁধে । দলটির অধিনায়ক হিসেবে তেমন কিছুই করতে পারেননি তিনি।

গুঞ্জন উঠেছে, বিশ্বকাপের প্রথম পর্ব থেকেই ছিটকে পড়ায় নেতৃত্ব হারাতে পারেন বাবর আজম। কেননা মাঠে এবং মাঠের বাইরে তার সমালোচনা ক্রমাগতই করে যাচ্ছেন পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটাররা। নিজের এমন দুর্দিনে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক কপিল দেবকে পাশে পাচ্ছেন বাবর। 

বাবরের নেতৃত্বের সমালোচনা চলছে বেশি। এছাড়া পাকিস্তানের বিভিন্ন টিভি-চ্যানেলে সাবেক ক্রিকেটারদের আতশি কাঁচের নিচে এসেছে বাবরের ব্যাটিং পারফরম্যান্সও। পুরো আসরে ব্যাট হাতে একেবারেই ব্যর্থ হন এই টপ অর্ডার ব্যাটার। আসরে ৯ ম্যাচে চারটি হাফ সেঞ্চুরিসহ ৪০ গড়ে করেন ৩২০ রান।

দুঃসময়ে বাবর পাশে পাচ্ছেন কপিলকে। একটি ইউটিউব পডকাস্টে কপিল জানান বাবরকে সাম্প্রতিক ফর্ম দিয়ে বিবেচনা করাটা একেবারেই ঠিক হবে না। কেননা পূর্বে পাকিস্তানকে এক নম্বর দল বানাতে পথ দেখিয়েছেন এই বাবরই।

কপিল বলেন, ‘আপনি আজ যদি বলেন বাবর আজম অধিনায়ক হিসেবে ঠিক পছন্দ নয়, তার মানে আপনি তার সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সের দিকে তাকাচ্ছেন। সে সেই একই অধিনায়ক আছে, যে কিনা ছয় মাস আগে পাকিস্তানকে আইসিসি ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ে ১ নম্বর দল বানিয়েছিল।’

‘কেউ যখন শূন্য রানে আউট হয়, ৯৯ শতাংশ মানুষ চাইবে তাকে বাদ দেওয়া হোক। আবার কোনো সাধারণ মানের খেলোয়াড় এসে যদি দুর্দান্ত একটি শতক করে, তাকেই মানুষ তারকা বলবে। তাই সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সের দিকে তাকাবেন না। খেলাটার প্রতি তার মনোভাব কী, তার আবেগ কতটা এবং সে কতটা প্রতিভাবান; সেটাই দেখুন।’

এবারের বিশ্বকাপে দুই জয়ে আসর শুরু করে পাকিস্তান। যদিও এরপরে টানা চারটি ম্যাচ হেরে নড়বড়ে অবস্থানে চলে যায় পাকিস্তান। শেষদিকে আরো দুটি ম্যাচ জিতলেও সেটি যথেষ্ট ছিল না।

– দৈনিক ঠাকুরগাঁও নিউজ ডেস্ক –